বিস্তারিত

দেশের মানুষকে একবার ভোট দেওয়ার সুযোগ দেন

ছবি : সংগ্রহকৃত

আজ শনিবার সকালে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে লেবার পার্টি আয়োজিত প্রতিহিংসার রাজনীতি, জাতীয় নির্বাচন ও বর্তমান প্রেক্ষাপট শীর্ষক আলোচনা সভায় মওদুদ আহমদ বলেন, দেশের মানুষকে একবার ভোট দেওয়ার সুযোগ দেন। মানুষ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারলে আওয়ামী লীগের খবরই থাকবে না।

ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, আপনারা চান খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে নির্বাচন করে ক্ষমতা দখল করতে। কিন্তু এ সুযোগ দেশের মানুষ আর আপনাদের দেবে না। জনগণকে ভোট দেওয়ার সুযোগ দিন তাহলে দেখবেন আপনাদের কি অবস্থা হয়। মানুষ ভোট দিতে পারলে আওয়ামী লীগকে আর খুঁজে পাওয়া যাবে না। বিএনপিকে ভোট দিয়ে খালেদা জিয়াকে প্রধানমন্ত্রী বানাবে।

খালেদা জিয়াকে ছাড়া দেশে কোনো নির্বাচন হবে না হতে দেওয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন বিএনপির এই নেতা।

বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরেকটু সংযত হলে দেশকে আরো এগিয়ে নেওয়া যেত। দেশের গণতন্ত্রকে সুসংহত করা যেত। তার সামনে সুযোগ ছিলে বাকশাল কায়েমের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের কপালে যে কালিমা লেপন হয়েছে তা মুছে ফেলার। কিন্তু তিনিও সেটা না করে করলেন উল্টোটা। তিনি চাইলে পারতেন মানুষের ভোটের অধিকার, গণতন্ত্র সুসংহত করতে। কিন্তু শেখ হাসিনা সেটা না করে করলেন একদলীয় শাসন কায়েম।’

এ সময় শিক্ষা ব্যবস্থা ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির সমালোচনা করেন মওদুদ আহমদ। তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে পরাজিত করতে কোনো স্লোগান দরকার হবে না। খালেদা জিয়া আমাদের সাথে থাকবেন আর স্লোগান হবে ৭০ টাকা দরে চাল খাব না, নৌকায় ভোট দেব না। ১৫০ টাকায় পেঁয়াজ খাব না নৌকায় ভোট দিব না।’

লেবার পার্টির সভাপতি ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার মীর নাসির, বরকত উল্লাহ বুলু, বাবু নিতাই রায় চৌধুরী।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক