বিস্তারিত

দায়িত্বে থাকা পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে

ছবি : সংগ্রহকৃত

জঙ্গিবাদ এবং সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকায় জাফর ইকবালের জীবনের উপর বারবার হুমকি আসছিলো। এজন্য সরকারের পক্ষ থেকে তার নিরাপত্তার জন্য পুলিশ পাহারা দেয়া হচ্ছে। কিন্তু গতকাল তার উপর হামলার সময় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যরা মোবাইল নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন।

নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশের পাশেই দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে হামলাকারীকে। জাফর ইকবালের ওপর হামলার আগে তোলা এক ছবিতে দেখা যায়, নিরাপত্তার দ্বায়িত্বে থাকা তিনজন পুলিশের ২ জনকেই দেখা গেছে মোবাইল নিয়ে ব্যস্ত। আর এসব কারণেই নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা এসব পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

এদিকে সকাল থেকে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করছে শিক্ষার্থীরা। অনেকটা উত্তাল হয়ে উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ। বিক্ষোভেও সাধারণ শিক্ষার্থীরা প্রশ্ন তুলেছে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে। কেউ কেউ বলছেন, সেসময় তারা ‘ফেসবুকিং’ করছিলেন। এটা চরম অবহেলা।

উল্লেখ্য, শনিবার বিকাল ৫টা ৪০ মিনিটে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) মুক্তমঞ্চে ওই অনুষ্ঠান চলাকালে দুর্বৃত্তের হামলার শিকার হন জাফর ইকবাল। এসময় এক পুলিশ সদস্যও আহত হন। বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

প্রাথমিক অবস্থায় জাফর ইকবালকে শঙ্কামুক্ত মনে করা হলেও উন্নত চিকিৎসার জন্য রাত সাড়ে ১০টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে তাকে সিলেট থেকে এয়ার এ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। এ ঘটনায় হামলাকারী যুবককে সঙ্গে সঙ্গে আটক করে গণধোলাই দিয়েছে শিক্ষার্থীরা। তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক