বিস্তারিত

জেলে নির্ঘুম রাত ধর্ষক বাবার

ছবি : সংগ্রহকৃত

bd news,bdnews,bdnews24,bdnews24 bangla,bd news 24,bangla news,bangla,bangla news paper,all bangla newspaper,bangladesh newspapers,all bangla newspaper,bangla news paper,bangladesh newspapers,all bangla newspapers,bd news 24,bangla news today,bd news paper,all bangla news paper,bangladeshi newspaper,all bangla newspaper,all bangla newspapers,bdnews,bangla news,bangla newspaper,bangla news paper,bangla news 24,banglanews,bd news 24,bangla news today,bd news paper,all bangla news paper,bangladeshi newspaper,all bangla newspaper,all bangla newspapers

আলোচিত ধর্মগুরু রাম রহিম সিং নরম বিছানায় আরাম করে ঘুমাতে পছন্দ করেন। ঘুমানোর সময় নারী সহযোগীকে সঙ্গে রাখতে ভুলে যান না। কিন্তু সেই মানুষটিকে কিনা হরিয়ানার রোহটাকের জেলখানায় নিঃসঙ্গ কাটাতে হলো রাত।

কোনো সহযোগী নেই। হুকুম দিলেই মনোরঞ্জনের ব্যবস্থা নেই। লাল নীল আলো জ্বলে না। বিছানা বলতে সাদা দুটি বেড শিট। দুটি কম্বল। এই সম্বলই তাকে সরবরাহ করেছে জেল কর্তৃপক্ষ। এ নিয়েই তাকে সোমবার দিবাগত রাত কাটাতে হয়েছে নির্ঘুম।

অবশেষে মঙ্গলবার দিনের ব্যস্ত সময়ে তার সামনে খাবার হিসেবে গেছে একটি চাপাটি আর এক গ্লাস দুধ। তাই খেয়ে দিনের বেলায় ঘুমিয়েছেন তিনি। এখন থেকে তাকে এই অভ্যাসেই অভ্যস্ত হতে হবে।

কারণ, দু’জন নারী ভক্তকে ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত হয়ে তিনি এখন ২০ বছরের জেল ভোগ করছেন। সরকার কোনো সাধারণ ক্ষমায় তাকে মুক্তি না দিলে এখানেই কাটাতে হবে তাকে দু’টি দশক।

কিন্তু বিলাসী জীবনধারা তার। তিনি ‘দ্য রকস্টার বাবা’ নামে পরিচিত। ভারত ও ভাতের বাইরে রয়েছে তার অনেক আশ্রম। তার কথায় ভক্তদের, বিশেষ করে নারী ভক্তদের তার সামনে হাজির করা হতো। তারপর তাদেরকে নির্দেশ দেয়া হতো ‘বাবা’র সেবা করতে। সেই সেবার নামে কি ঘটতো তা বাইরের মানুষের জানার কথা ছিল না। কিন্তু তাকে বিপদে ফেলে দিয়েছেন ডানপিঠে দু’জন নারী ভক্ত। তারাই তাকে রাজকীয় অবস্থা থেকে চার দেয়ালে বন্দি করেছেন। কয়েক কোটি ভক্ত তার। আর সেই মানুষ শেষ পর্যন্ত সিবিআইয়ের স্পেশাল জজ জগদিপ সিংয়ের কাছে করুণা প্রার্থনা করলেন শাস্তি ঘোষণার আগে! বিচারক তার আবেদনে সাড়া দেন নি। ফলে ধর্ষণে অভিযুক্ত হয়ে এখন কয়েদি নম্বর ১৯৯৭ তিনি।

সংবাদের ধরন : অপরাধ নিউজ : নিউজ ডেস্ক