বিস্তারিত

জাভেদ আখতার বলেছিলেন তুমি আত্মহত্যা করতে বাধ্য হবে

ছবি : সংগ্রহকৃত

অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত বলিউডে আগেও বিস্ফোরক সব অভিযোগ সামনে এনেছেন। সোজা সাপটা কথা বলতে কখনই পিছপা হননা তিনি। বিশেষত তাঁর হৃত্বিক রোশনের বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগের কথা সবাই জানেন। এবার সুশান্তের মৃত্যুর পর ফের সেই সময় কার এক বিস্ফোরক অভিযোগের কথা তুলে আনলেন অভিনেত্রী।

তিনি জানিয়েছেন, তাঁকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হওয়ার কথা বলেছিলেন জাভেদ আখতার। বলেছিলেন, ‘ক্ষমা না চাইলে তোমার আত্মহত্যা করা ছাড়া আর কোনও পথ থাকবে না।’ এমনকি জাভেদ আখতার বিশ্রীভাবে চেঁচামেচি করেছিলেন বলেও জানিয়েছেন কঙ্গনা।

এই বক্তব্যের পর কঙ্গনা প্রশ্ন তুলেছেন, একই পরিস্থিতি দিয়ে কি সুশান্তকেও যেতে হয়েছিল? তাঁর মাথায় কি ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছিল আত্মহত্যার চিন্তা? তিনি জানেন না, তবে নিশ্চয়ই সুশান্তও এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছিলেন। এক সাক্ষাৎকারে সুশান্ত বলেন, প্রতিভা আর স্বজনপোষণ একসঙ্গে থাকতে পারে না কারণ স্বজনপোষণ কখনও প্রকৃত প্রতিভাকে মাথা তুলতে দেয় না।

তাঁর ব্যক্তিগত জীবনেও এই প্রভাবশালীদের ছায়া পড়েছে বলে কঙ্গনা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, একজন তাঁকে বিয়ে করতে চাইত। কিন্তু এই সব লোকেরা তাকে সরে যেতে বাধ্য করে তাঁর জীবন থেকে।

তাঁর প্রেম পুরোপুরি শেষ হয়ে গিয়েছে, তাঁর বিরুদ্ধে আদালতে ৬টা মামলা চলছে। এখনও সকলে চেষ্টা করছে, যাতে তাঁকে জেলে পোরা যায়।

সুশান্তের সঙ্গে নিজের চরিত্রের পার্থক্য ব্যাখ্যা করে কঙ্গনা বলেন, তিনিন সব কিছু সবার সামনে বলে ফেলেন আর সুশান্ত সব কিছু নিজের মধ্যে রেখে দিতেন, সহ্য করতেন।

কঙ্গনা বলেন, এম এস ধোনি সুপারহিট হওয়া সত্ত্বেও সালমান খান প্রশ্ন করেছিলেন, সুশান্ত কে? অথচ তখন, গোটা দেশ জানে, কে সুশান্ত।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক