বিস্তারিত

চীনের উন্নয়ন থেকে শিক্ষা নেওয়ার আছে

ছবি : সংগ্রহকৃত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, চীনের ইতিহাস ও উন্নয়ন থেকে অনেক কিছু শিক্ষা নেওয়ার আছে। তিনি বলেন, চীন এখনো অনেক বাধার মুখে রয়েছে। কারণ অনেকে চায় না এ অঞ্চল বা এশিয়ার একটি দেশ বিশ্বের সর্ববৃহৎ অর্থনীতি হোক।

আজ বুধবার চীনের বেইজিংয়ের লিজেনদালি হোটেলে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে চীন ও ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের যুগপৎ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক নিয়ে আলাপকালে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেক হাসিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, চীন গত ৭০ বছরে একটি গরিব দেশ থেকে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ অর্থনীতিতে পরিণত হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সবার সঙ্গে আমাদের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। জাতির পিতা ব্ঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেওয়া পররাষ্ট্র নীতি অনুসরণের ফলে এখন কারও সঙ্গে বাংলাদেশের বৈরী সম্পর্ক নেই। যে কারণে বাংলাদেশ সামনে এগিয়ে যাচ্ছে এবং বিনিয়োগ পাচ্ছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন চীনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. ফজলে করিম। প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে ইঞ্জিনিয়ার শামসুল হক অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

দালিয়ানে ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) বার্ষিক সম্মেলনে যোগদান শেষে বুধবার সকালে বেইজিং পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক