বিস্তারিত

চট্টগ্রামে এলাকাভিত্তিক লকডাউন শুরু

ছবি : সংগ্রহকৃত

চট্টগ্রাম নগরীতে প্রথমবারের মতো শুরু হয়েছে ‘এলাকাভিত্তিক লকডাউন’। মঙ্গলবার রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়। মহামারী ঠেকাতে ২১ দিনের কড়া ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

রেড জোন ঘোষিত দশটি এলাকার মধ্যে নগরীর আকবরশাহ থানার ১০নং উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ড প্রথম লকডাউন করা হয়েছে। এই ওয়ার্ডের ২০টি প্রবেশ পথের ১৪টিই বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। জরুরি প্রয়োজনে ব্যবহারের জন্য খোলা রাখা হয়েছে ৬টি পথ।

মঙ্গলবার দুপুরে লকডাউনের কর্মপরিকল্পনা নিয়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) কনফারেন্স হলে সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। সভায় উত্তর কাট্টলীর বাসিন্দাদের সরকারি স্বাস্থ্যবিধি ও চসিকের প্রদর্শিত নিয়মকানুন মেনে লকডাউন কার্যকর করার জন্য অনুরোধ জানান মেয়র।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন সূত্র জানায়, এলাকাবাসীর সার্বিক সহায়তার জন্য চসিকের একাধিক কন্ট্রোলরুম ও এলাকাভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবক টিম প্রস্তুত করা হয়েছে। এই ওয়ার্ডের ২০টি প্রবেশপথের ১৪টি বন্ধ করে দেয়া হয়। কেবল জরুরি প্রয়োজনে অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, স্বেচ্ছাসেবক ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর গাড়ি চলাচলের জন্য খোলা থাকবে ৬টি সড়ক।
জরুরি প্রয়োজনে চসিকের কন্ট্রোল রুমে (০৩১-৪৩১৫১৩৬৮, ০৩১-৪৩১৫১৩৬৯, ০৩১-৪৩১৫১৩৭০, ০৩১-৪৩১৫১৩৭১, ০৩১-৪৩১৫১৩৭২, মোবাইল ০১৮১৯-০৫৬৮৪৪, ০১৮১১-৮৮৭০৮৪) যোগাযোগ করা যাবে।

লকডাউনের আওতামুক্ত থাকবে সাগরিকার বিসিক শিল্প এলাকা। প্রতিদিন রিকশাভ্যানের মাধ্যমে ন্যায্য বাজার মূল্যে কাঁচাবাজার সরবরাহ করা হবে লকডাউন এলাকায়।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : নিউজ ডেস্ক