বিস্তারিত

গাজী রাকায়েতের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির মামলা

ছবি : সংগ্রহকৃত

অভিনেতা ও নির্মাতা গাজী রাকায়েতের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এক তরুণী। তরুণীর অভিযোগ, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে তাঁকে যৌন হয়রানি করেছেন গাজী রাকায়েত।

পর্ণোগ্রাফি সরবরাহের অভিযোগে চলচ্চিত্র নির্মাতা গাজী রাকায়েতের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। শুক্রবার রাজধানীর শ্যামপুর থানায় মামলাটি করেন শ্যামপুর পোস্তগোলা এলাকার কানিজ ফাতিমা সুমাইয়া (৩০) নামের ওই গৃহবধূ। মামলায় তিনি ইন্টারনেট সংযুক্ত মোবাইলফোনের মাধ্যমে পর্ণোগ্রাফি সরবরাহের অভিযোগ করেছেন।

মামলার অভিযোগে সুমাইয়া উল্লেখ করেন, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি রাত ৩টা ১ মিনিটে গাজী রাকায়েত তার ফেসবুক আইডি থেকে সুমাইয়ার ম্যাসেঞ্জারে অশ্লীল প্রস্তাব দেয়। এরপর ম্যাসেঞ্জারের কথোপকথনটি স্ক্রীনশট দিয়ে তা একটি ক্লোজ গ্রুপে পোস্ট দিলে গত ৬ মার্চ গাজী রাকায়েত জানায়, তার দু’টি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে।

পরে বিষয়টি নিয়ে ডিরেক্টরস গিল্ড, টেলিভিশন প্রযোজক সমিতি এবং শিল্পী সমিতি নিকেতন অফিসে আলোচনা হয়। ওই তিনটি সংগঠন বিষয়টি তদন্ত করবে বলে আশ্বাস দেয়। কিন্তু ১০ মার্চের পর থেকে তদন্তের নামে কালক্ষেপণ করে আপোষ-মীমাংসার নামে বিভিন্ন প্রস্তাব দেয়া হয়। এসব বিষয় উল্লেখ করে ১৭ মার্চ শ্যামপুর থানায় সাধারণ ডায়েরী (জিডি) এবং ১৩ মার্চ সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ডিভিশনে অভিযোগ করেন সুমাইয়া। এদিকে অন্যায়ের প্রতিবাদ করায় গাজী রাকায়েত বাদী হয়ে ১৬ মার্চ সুমাইয়ার বান্ধবী অপরাজিতা সঙ্গিতার বিরুদ্ধে ত্যথ-প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় একটি মামলা করে। পাশপাশি অভিযোগ প্রত্যাহার করার জন্যে তাকে চাপ প্রয়োগ করেন।

এদিকে মামলা দায়েরের পর গাজী রাকায়েত ভুক্তভোগী ও তার পরিবারের সদস্যদের দেখে নেয়ার হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে ঘটনা নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি গাজী রাকায়েত।

দেশের নাট্যনির্মাতাদের সংগঠন ডিরেক্টরস গিল্ডের বর্তমান সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন গাজী রাকায়েত।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : নিউজ ডেস্ক