বিস্তারিত

গরমে কিভাবে ত্বকের যত্ন নিবেন

ছবি : সংগ্রহকৃত

গরমে ত্বকের নানা সমস্যা তো হতেই পারে। ঘামের কারণে কমবেশি সবারই হয় অস্বস্তি, আবার গরমে তৈলাক্ত ত্বকে বাইরের ধুলা-ময়লা আটকে গিয়েও সমস্যা হতে পারে। ব্রণের সমস্যায় ভোগেন অনেকেই। আর মেক আপের ব্যাপারেও থাকতে হয় সতর্ক। গ্রীষ্মের প্রখর রোদ ও ধুলাবালুতে ত্বক হয় নিষ্প্রাণ।

জেনে নিন তার পরামর্শ:

এ সময় রোদ এবং গরম বাতাস ত্বকের প্রচন্ড ক্ষতি করে। অতিরিক্ত ঘাম থেকে চুলকানি, ইনফেকশন, সানবার্ন, মেসতা এবং নানা রকম চর্ম রোগ দেখা দেয়। ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে এই গরমে চাই কিছু বাড়তি যত্ন –

১) ত্বকের সুস্থতার জন্য সবজি, ফল, সালাদ, প্রোটিন, ভিটামিন, কার্বহাইড্রেড অত্যান্ত জরুরী। প্রতিদিন কমপক্ষে ৭ থেকে ৮ গ্লাস পানি পান করা জরুরী।

২) রক্ত চলাচল ও শ্বাস – প্রশ্বাসের কার্যকলাপ ঠিক রাখার জন্য ব্যায়াম করতে হবে। মানসিক চাপ থেকে ত্বক ও চুলে নানা রকম সমস্যা দেখা দেয়। সেক্ষেত্রে নিয়মিত ব্যায়াম এ সমস্যা সমাধানে কাজ করে।

৩) দিনে অন্তত দুইবার ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করা ঊচিত। আর অবশ্যই পরিষ্কার এবং ধোয়া সুতি কাপড় পরিধান করুন।

৪) আমাদের ত্বকে দুই ধরনের সোয়েট গ্ল্যান্ড বা ঘর্মগ্রন্থি রয়েছে। হাতের তালু এবং পায়ের পাতার অংশে এক ধরনের এবং অন্য ধরনের গ্ল্যান্ড আন্ডার আর্ম ও শরীরের অন্যান্য অংশে রয়েছে। ডিওড্রেন্ট ট্যালকম পাউডার ব্যাবহার করে, পারফিউম লাগিয়ে এ সম্যসার সমাধান সম্ভব।

৫) গরমে প্রতিদিন হালকা এবং সুতির জামা-কাপড় বদলে পরার চেষ্টা করুন।

৬) দিনে তিন থেকে চার বার মুখমণ্ডল ধৌত করুন।

৭) শসা এবং কমলার সরবত পান করুন, এতে সজীবতা পাবেন।

৮) প্রতিদিন স্ক্রাব ব্যাবহার না করাই উত্তম। এতে ত্বক শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।

৯) ঘরে তৈরী টমেটো এবং লেবুর প্যাক মুখমণ্ডলে লাগাতে পারেন। এতে অতিরিক্ত তেল এবং ব্ল্যাকহেডস তুলে নিবে।

১০) রোদে যাওয়ার আগে অবশ্যই সানস্ক্রিন অথবা সানব্লক ক্রিম অথবা লোশন ব্যাবহার করুন। সানগ্লাস ব্যাবহার করতে ভুলবেন না।

১১) যদি বাহিরে হেঁটে বেড়াতে হয়, তাহলে ঘরে ফিরেই প্রথমে ঠান্ডা হয়ে নিন, এরপর ত্বকে ঠান্ডা পানি ছিটিয়ে দিন।

১২) চুল, ত্বক সুস্থ ও উজ্জ্বল রাখতে এবং সামগ্রিক সুস্থতা বজায় রাখতে পানি একটি অপরিহার্য উপাদান। যথেষ্ট পরিমাণ পানি খেলে রক্ত সঞ্চালন ভালো থাকে এবং ত্বক মসৃণ, সজীব এবং উজ্জ্বল থাকে।

এর বাহিরে যদি কোনো সমস্যা দেখা দেয়, তাহলে প্রথমে সেটি বোঝার চেষ্টা করুন। যদি সমস্যা বুঝতে না পারেন তাহলে ভালো কোনো রূপ বিশেষজ্ঞের সাহায্য নিন।

সংবাদের ধরন : জীবন যাপন নিউজ : নিউজ ডেস্ক