বিস্তারিত

খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ল আরও ৬ মাস

ছবি : সংগ্রহকৃত

বেগম খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, করোনাকালে বিএনপি নেত্রী চিকিৎসা নিতে পারেননি-এ বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে তার পরিবারের আবেদনে অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়ছে। ২ সেপ্টেম্বর জানিয়েছিলেন আইনমন্ত্রী। মঙ্গলবার বিএনপি নেত্রীর আবেদনে প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দেয়ার পর প্রজ্ঞাপন জারি করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, দেশেই চিকিৎসা নেয়ার শর্তেই সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। যা কার্যকর হবে ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে। খালেদা জিয়ার ভাইয়ের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ দণ্ডাদেশ শর্তসাপেক্ষে ৬ মাসের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। এ সময় খালেদা জিয়া ঢাকায় চিকিৎসা নিতে পারবেন। কিন্তু বিদেশ যেতে পারবেন না। খালেদা জিয়ার আরও ৬ মাস মুক্তির ক্ষেত্রে আগে যেসব শর্ত ছিল সেগুলো অপরিবর্তিত থাকবে। এ সময়ের মধ্যে বেগম জিয়া রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে পারবেন না।

বেগম জিয়ার আইনজীবীর ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, আমার বিশ্বাস খালেদা জিয়ার যে শরীরের অবস্থা তাতে তাকে বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেবেন।

দুর্নীতির দুই মামলায় ১৭ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত বেগম খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত করে ২৫ মার্চ ৬ মাসের জন্য মুক্তি পান। সাজা স্থগিতের মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়ায় আগামী বছরের ২৫ মার্চ শেষ হবে মুক্তির মেয়াদ।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক