বিস্তারিত

খালেদা জিয়ার মামলা লড়তে রাজি হননি ড. কামাল

ছবি : সংগ্রহকৃত

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পক্ষে মামলা লড়তে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ড. কামাল হোসেনকে অনুরোধ জানালেও তা ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি।

মামলা লড়তে না পারলেও খালেদা জিয়ার প্রতি সহানুভূমি থাকবে বলে মির্জা ফখরুলকে জানিয়েছেন ড. কামাল। ধারণা করা হচ্ছে দলীয় আইনজীবীদের মধ্যে সমন্বয়হীনতার কারণেই ড. কামালের কাছে ছুটে গিয়েছিলেন বিএনপি মহাসচিব।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে মতিঝিলের টয়োটা টাওয়ারে ড. কামাল হোসেনের ল’ চেম্বারে যান বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এ সময় আইনজীবী আবদুর রেজাক খান, আইনজীবী সুব্রত চৌধুরী, আমিনুল ইসলামসহ কয়েকজন সঙ্গে ছিলেন। তারা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার নথিপত্র নিয়ে যান। এ সময় খালেদা জিয়ার মামলার নথিও নিয়ে যান তারা। প্রায় এক ঘণ্টা বৈঠক শেষে বেরিয়ে আসেন মির্জা ফখরুলসহ আইনজীবীরা।

পরে অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান, মির্জা ফখরুলসহ কয়েকজন গিয়েছিলাম স্যারের কাছে (ড. কামাল)। তিনি জানিয়েছেন, তিনি এখন ক্রিমিনাল কেস করেন না। এটা তিনি কম বোঝেন, তবে খালেদা জিয়ার প্রতি তার সিমপ্যাথি (সহানুভূতি) থাকবে।

খালেদা জিয়ার আপিল মামলায় প্যানেল আইনজীবীদের অন্যতম সদস্য ব্যারিস্টার এ কে এম এহসানুর রহমান বলেন, এ মামলায় ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, অ্যাডভোকেট এজে মোহাম্মদ আলী, অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, ব্যারিস্টার এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন সিনিয়র কাউন্সিল হিসেবে নিযুক্ত আছেন। এরপরও দল চাইলে যে কোনো আইনজীবীকে নিয়োগ দিতে পারে।

খালেদা জিয়ার আপিল দায়েরকারী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল সাংবাদিকদের বলেন, আমরা (আইনজীবী) এ মামলার আইনজীবীমাত্র। তাই মামলার শুনানিতে কে বা কারা থাকবেন তা অনেকাংশে দলের নেতাদের ওপর নির্ভর করছে। এ বিষয় দলের মহাসচিব ভালো বলতে পারবেন।

 

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক