বিস্তারিত

ওমানে ভাস্কো দা গামার নৌযানের ধ্বংসাবশেষ আবিষ্কার

bdnews,bd news,bangla news,bangla newspaper ,bangla news paper,bangla news 24,banglanews,bd news 24,bd news paper, ছবি : সংগ্রহকৃত

ওমানে ৫০০ বছর আগের পর্তুগিজ নাবিক এবং ইউরোপ থেকে ভারতবর্ষে আসার সমুদ্রপথের আবিষ্কারক ভাস্কো দা গামার বহরের একটি নৌকা আবিষ্কার হয়েছে। সাথে পাওয়া গেছে একটি মুদ্রাও। মঙ্গলবার ওমানের প্রত্নতাত্ত্বিকরা এই নৌকা ও মুদ্রার সন্ধান পাওয়ার কথা জানিয়ে বলেছেন, নৌকাটি পরিচালনা করতেন ভাস্কো দা গামার এক চাচা। ভারত মহাসাগরের আল হাল্লানিয়াহ দ্বীপের কাছে ১৫০৩ সালে এসমারেলডা নামক নৌযানটি এক ভয়ঙ্কর ঝড়ে ডুবে যায়। এতে এর কমান্ডার ভিসেন্ট সদরে ও তার সাথে থাকা সবাই নিহত হয়েছিলেন।

২০১৩ সালে ব্রিটিশ কোম্পানি ব্লু ওয়াটার রেকোভারিজ ও ওমানের প্রত্ন ও সংস্কৃতি বিভাগ ওই দ্বীপের গুব্বাস আর রাহিবে অনুসন্ধান অভিযান শুরু করে। ওখান থেকে পাওয়া ধ্বংসাবশেষ থেকে তারা জানায় এগুলো ভাস্কো দা গামার দ্বিতীয় ভারত অভিযানের একটি জাহাজের। ব্লু ওয়াটারের পরিচালক ডেভিড এল মিরস জানান, সেখান থেকে পাওয়া গেছে পাথর, সিরামিক, একটি বেল ও আরো অনেক ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছে।

উদ্ধার করা হয়েছে ভাস্কো দা গামার প্রথম ভারত অভিযানের পরের ১৪৯৯ সালের একটি মুদ্রাও। এখান থেকেই ধ্বংসাবশেষের তারিখ নির্ধারণ করা গেছে। উদ্ধার হওয়া মুদ্রা প্রত্নতাত্ত্বিকরা এসব আবিষ্কারের কথা উল্লেখ করেছেন মঙ্গলবার ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অব নটিক্যাল আর্কিওলজি-তে প্রকাশিত এক নিবন্ধে। প্রত্ন ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের পরিদর্শক আইউব আল বুসাইদি জানিয়েছেন, এটি পানির নিচে ওমানের প্রথম কোনো অনুসন্ধান কাজ। এ আবিষ্কারের মাধ্যমে অন্যান্য বিষয়েও অনুসন্ধান চালাতে আগ্রহ বৃদ্ধি পাবে। গোব্বাত আর রাহিব উপসাগর বর্তমানে ওমান অতীতের আন্তর্জাতিক ব্যবসা ও সম্পর্কের ব্যাপারে জানতে আগ্রহশীল হয়ে উঠেছে বলেও জানান বুসাইদি। সূত্র : গালফ নিউজ

সংবাদের ধরন : আন্তর্জাতিক নিউজ : স্টাফ রিপোর্টার