বিস্তারিত

এ কেমন কমিশন নড়েও না, চড়েও না

bdnews,bd news,bangla news,bangla newspaper ,bangla news paper,bangla news 24,banglanews,bd news 24,bd news paper,all bangla news paper,all bangla newspaper ছবি : সংগ্রহকৃত

ইউপি নির্বাচনে ব্যাপক সহিংসতা ও হতাহতের ঘটনায় নির্বাচন কমিশনের কঠোর সমালোচনা করেছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশন বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিধর নির্বাচন কমিশন। কমিশন ইচ্ছা করলে নির্বাচন বাতিলও করতে পারে, গ্রহণও করতে পারেন। যে কারো চাকরি খেতে পারে তারা। কিন্তু এ কেমন কমিশন, নড়েও না, চড়েও না। আগায় না পিছায়ও না। একটা কিছু ক গোলাপি একটা কিছু ক। আপনাদের তো কিছু বলতে হবে। আজ শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর ঢাকেশ্বরী মন্দিরে বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন পরিষদের দ্বিবার্ষিক-বার্ষিক সম্মেলনে তিনি একথা বলেন। এ সময় সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত আরো বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আজও নয়জন মারা গেল। এখানে তুমি-আমি চক্ষু বুজে রাখতে পারি না। এর মধ্যে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকদেরও আত্মাহুতি দিতে হচ্ছে।

কিন্তু আমাদের নির্বাচন কমিশন এদের তো রক্ষা করতে পারেন না। এই রকম নির্বাচন কমিশনকে ক্ষমতা দিতে তো আমরা আসি নাই। নির্বাচনী সহিংসতায় বিচার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি বলেন, এতগুলো মানুষ মারা গেল! তাও যদি এটা থাকত যে, বিচার হয়। বিচার করেন না, বিচার করার জায়গায় কথা বলেন না। বলার সাহস রাখেন না। ইনিয়ে-বিনিয়ে অন্যভাবে বলার চেষ্টা করেন যে, এটা করাই ঠিক হইছে। এই হাইব্রিড যারা বইসা থাকেন আমি তো দেখি। এইগুলা কমাতে হবে। সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেন, পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর সংবিধান লঙ্ঘন করা হয়েছে, অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে ধ্বংস করা হয়েছিলো। তারা মনে করেছিলো সব শেষ। কিন্তু আজ দেখছে শেষ হয়েও শেষ হলো না। ‘সেকুলার’ দেশ আওয়ামী লীগই রক্ষা করে। দেশের বিভিন্ন স্থানে সংখ্যালঘু নির্যাতন বন্ধের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সংখ্যালঘুদের উপর যখন নির্যাতন হয় তখন আমরা কষ্ট পাই।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : স্টাফ রিপোর্টার