বিস্তারিত

এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানে করোনা পজিটিভ

ছবি : সংগ্রহকৃত

ভারতে একের পর এক সংক্রমণের খবর আসছে। কিন্তু লকডাউনে শিথিলতা আসছে ক্রমশ। একটু একটু করে স্বাভাবিক করার চেষ্টা চলছে। সোমবার থেকে তাই বিমান পরিষেবা চালু করা হয়েছে। প্রথম দিনই ৩৯০০০ যাত্রী সফর করেছেন বিমানে।

লকডাউনের পর প্রথম দিনে ইন্ডিগো বিমানে এক যাত্রীর শরীরে করোনা ধরা পড়ে। ২৩ বছর বয়সী ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, ওই বিমানের ৯০ জন যাত্রীর করোনা পরীক্ষা হয়েছে, প্রত্যেকেরই রিপোর্ট নেগেটিভ হয়েছে। প্রত্যেককে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

ওই বিমানটিকে ১৪ দিন ওড়ানো হবে। এয়ারক্রাফট ডিস-ইনফেক্ট করে তবেই ওড়ানো হবে। এয়ারলাইনসের তরফ থেকে জানানো হয়েছে আক্রান্ত ওই যাত্রীর ফেস মাস্ক, গ্লাভস ও ফেস শিল্ড সবই ছিল। তাছাড়া ওই ব্যক্তির পাশে কেউ বসেননি। ফলে সংক্রমণের আশঙ্কা কমই রয়েছে।

লকডাউনের পর দ্বিতীয় দিনের বিমানেই ধরা পড়ল করোনা আক্রান্ত। কোয়ারেন্টাইনে রাখা হল বিমানের সব যাত্রীকে।মঙ্গলবার দিল্লি থেকে লুধিয়ানাগামী একটি এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানে ওই করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির হদিশ মিলেছে। আক্রান্ত ব্যক্তির অ্যালায়েন্স এয়ারের সিকিউরিটি বিভাগে কর্মরত। তাঁর শরীরে করোনা ভাইরাস ধরা পড়ায় বিমানের সমস্ত যাত্রীকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। বুধবার এয়ার ইন্ডিয়ার তরফ ধেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে একথা জানানো হয়েছে।

ভারতে সংক্রমণ প্রতিদিন নতুন করে শুধুই বেড়ে চলেছে। বুধবার সকালে নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৫১ হাজার ৮৭৬ জন। সারা দেশে করোনায় মোট মৃত চার হাজার ৩৪৬ জন।

সংবাদের ধরন : আন্তর্জাতিক নিউজ : নিউজ ডেস্ক