বিস্তারিত

”এসকেএফ” করোনা ঔষধ বাজারজাত করতে পারবে না

ছবি : সংগ্রহকৃত

এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেড করোনাভাইরাস চিকিৎসায় তাদের উৎপাদিত ঔষধ রেমডেসিভির এখনই বাজারজাত করতে পারবে না।

ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর জানিয়েছে, কোম্পানীটি নিয়ম অনুয়ায়ি এখনও অধিদপ্তরে ওষুধের নমুনা জমা দেয়নি। এটি জমা দেয়ার পর ড্রাগ টেস্টিং ল্যাবে তা পরীক্ষা হবে। পরীক্ষার ফল সন্তোষজনক হলে মার্কেটিং অথরাইজেশন সনদ দেয়া হবে। এর আগে ঔষধ বাজারজাত করা যাবে না। শনিবার ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের পরিচালক রুহুল আমিন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর কর্তৃক মেসার্স এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেডসহ মোট আটটি প্রতিষ্ঠানকে রেমডেসিভির ইনজেকশন উৎপাদনের জন্য রেজিস্ট্রেশন দেয়া হয়েছে। এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যাল মৌখিকভাবে অবহিত করেছে যে, তারা রেমডেসিভির ইনজেকশনটি উৎপাদন করেছে এবং তাদের ল্যাবরেটরিতে এটির পরীক্ষা ও বিশ্লেষণের কার্যক্রম চলমান।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, এসকেএফ অদ্যাবধি নিয়মানুযায়ী তাদের উৎপাদিত রেমডেসিভির ইনজেকশনের নমুনা পরীক্ষা ও বিশ্লেষণের জন্য ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের অধীন ড্রাগ টেস্টিং ল্যাবরেটরিতে দাখিল করেনি। তারা মৌখিকভাবে জানিয়েছে যে, ১০ই মে ড্রাগ টেস্টিং ল্যাবরেটরিতে ওই নমুনা দাখিল করবে। ড্রাগ টেস্টিং ল্যাবরেটরি কর্তৃক প্রেরণকৃত নমুনার পরীক্ষার ফলাফল সন্তোষজনক পাওয়া গেলে সেটির অনুকূলে বাজারজাতকরণের জন্য মার্কেটিং অথরাইজেশন সনদ প্রদান করা হবে। মার্কেটিং অথরাইজেশন সনদ প্রাপ্তির পরই প্রতিষ্ঠানটি ওই ওষুধটি বাজারজাত করতে পারবে।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক