বিস্তারিত

ইরানের ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতেই ”ইউক্রেনের বিমান” বিধ্বস্ত

ছবি : সংগ্রহকৃত

ইরানের সামরিক বাহিনীর ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতেই ইউক্রেনের যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্ত হয়। এমন দাবি করেছে, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা ও পশ্চিমা গোয়েন্দারা। তবে তাদের মতে, এ হামলা ইচ্ছাকৃত ছিল না।

গত বুধবার ইরাকে মার্কিন ঘাটিতে দফায় দফায় হামলা চালায়, ইরানের সামরিক বাহিনী। তবে, ভোর-রাতে তেহরান থেকে উড্ডয়নের পরপরই বিধ্বস্ত হয়, কিয়েভগামী ইউক্রেনের যাত্রীবাহী একটি বিমান। যেখানে ইউক্রেন, কানাডা, ইরানসহ বেশ কয়েকটি দেশের ১৭৬ আরোহীর সবাই নিহত হন।

সেসময় ইরান ও ইউক্রেন থেকে যান্ত্রিক ত্রুটির কথা হলেও; ২৪ ঘণ্টা না পেরুতেই ইউক্রেন থেকে বিধ্বস্তের কারণ নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করা হয়।

বৃহস্পতিবার রাতে, বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার নতুন ভিডিও প্রকাশ করে, মার্কিন গণমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমস ও সিএনএন। তারা একে সঠিক ভিডিও বলে দাবিও করে। জানায়, রাশিয়ার তৈরি ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতেই বিধ্বস্ত হয় বিমানটি।

কানাডার ও ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী এবং ব্রিটেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ইরানের ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতেই বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে। এমন গোয়েন্দা তথ্য ও প্রমাণ রয়েছে, তাদের কাছে। তবে, এটি ভুলবশত ছিল।

রাজধানী কিয়েভে নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক শেষে, দুর্ঘটনায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট।

সংবাদের ধরন : আন্তর্জাতিক নিউজ : নিউজ ডেস্ক