বিস্তারিত

আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি ঈদের আগেই করোনা মুক্ত হতে পারি :নরেন্দ্র মোদি

ছবি : সংগ্রহকৃত

করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করছেন ভারতের সমস্ত নাগরিক। প্রত্যেকেই সৈনিকের মতো যুদ্ধ করছেন। তাঁদের এই লড়াইকে আমি মাথা ঝুঁকিয়ে প্রণাম করছি আমি।’ রবিবার সকাল ১১ টায় ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দেশবাসীর ভূয়সী প্রশংসা করে এই মন্তব্য করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে গত ২৫ মার্চ থেকে ভারতজুড়ে লকডাউন করা জারি হয়েছে। গত ১৪ এপ্রিল তা উঠে যাওয়ার কথা থাকলেও সংক্রমণ বৃদ্ধির হার দেখে ফের তার সময়সীমা বৃদ্ধি করে কেন্দ্র। রবিবার সকালেই আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৬ হাজার। মৃত্যু হয়েছে ৮২৪ জনের। সুস্থও হয়েছেন ৫৮০৪ জন। এই অবস্থার মধ্যে রবিবার সকালে ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দেশবাসীর সামনে নিজের বক্তব্য পেশ করেন প্রধানমন্ত্রী।

চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যকর্মীদের অক্লান্ত পরিষেবা দেখে গোটা দেশ তাঁদের সম্মানে মোমবাতি জ্বালাচ্ছেন, ঘণ্টা বাজাচ্ছেন। সাফাইকর্মীদের উপর পুষ্পবৃষ্টি হচ্ছে। আসলে করোনা যেমন আমাদের আতঙ্কিত করেছে তেমনি এর ফলে অনেক ভাল পরিবর্তন হয়েছে। প্রত্যেকেই সামর্থ্য অনুযায়ী অন্যের পাশে দাঁড়িয়েছেন। কেউ মাস্ক তৈরি করে অন্যদের মধ্যে বিলি করেছেন তো অনেকেই ক্ষুধার্ত মানুষের মুখে খাবার তুলে দিয়েছেন। সরকারের তরফেও দুস্থ মহিলাদের বিনামূল্যে তিনমাস রান্নার গ্যাস, কৃষক ও জনধন যোজনার অ্যাকাউন্ট থাকা মহিলাদের টাকা দিয়েছে। গরিব কল্যাণের টাকা সোজাসুজি অ্যাকাউন্টে পৌঁছচ্ছে।

আয়ুর্বেদ ও প্রাণায়ামের মতো প্রাচীন শিক্ষার জন্য আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এই যুদ্ধে আমাদের জয়ী করবে বলেও উল্লেখ করেন। তবে করোনা পরবর্তী পরিস্থিতিতে যেখানে সেখানে থুতু ফেলার মতো বাজে অভ্যাস আমাদের ত্যাগ করতে হবে বলেও পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সবাইকে মাস্ক পড়ারও পরামর্শ দেন। চিকিৎসা ও অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত থাকা মানুষদের হেনস্তা করলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘পবিত্র রমজান মাস শুরু হয়ে গিয়েছে। কেউ হয়তো ভাবতেও পারিনি উৎসবের এমন সময়ে ভয়াবহ এমন পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে হবে আমাদের। আসুন আমরা সকলে আরো বেশি করে আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি যাতে ঈদের আগেই করোনা মুক্ত হতে পারি আমরা।

সংবাদের ধরন : আন্তর্জাতিক নিউজ : নিউজ ডেস্ক