বিস্তারিত

আফগান স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত

ছবি : সংগ্রহকৃত

আফগানিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফিরোজউদ্দিন ফিরোজএ বার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন। শুক্রবার ফিরোজের কোভিড-১৯ সংক্রমণের খবর নিশ্চিত করা হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২১৫ জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তাঁদের মধ্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রী একজন। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে, নাকি বাড়িতেই চিকিত্‍‌সাধীন, সে বিষয়ে পরিষ্কার করে কিছু জানানো হয়নি।

আফগানিস্তানে এখনও পর্যন্ত ৩ হাজার ৭৭৬ জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। মৃত্যু হয়েছে ১০৯ জনের। গত এপ্রিলেই আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানির প্যালেসের ২০ কর্মীর করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। তাঁরা এখন সকলেই চিকিত্‍‌সাধীন রয়েছেন।

সূত্রের খবর, ১৯ এপ্রিল আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্সিয়াল প্যালেসের ২০ কর্মীর করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। তার পরেই প্রেসিডেন্টের প্যালেসের সকল কর্মী-আধিকারিকের নমুনা সংগ্রহের ব্যবস্থা করে স্বাস্থ্যমন্ত্রক। যদিও, সেখানে আর কারও ভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়েনি।

আফগানিস্তানের চিকিৎসকদের দাবি, টেষ্ট কিট পর্যাপ্ত না-থাকার কারণে, করোনার মোকাবিলা তাঁদের পক্ষে কঠিন হয়ে যাচ্ছে। কারণ, দ্রুত পরীক্ষা করে আক্রান্তদের চিহ্নিত করা সম্ভব হত। চিকিৎসাও শুরু হত দ্রুত। তা না হওয়ায়, দেশজুড়ে সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কা করছেন তাঁরা।

সেদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রকের অধীনে থাকা কাবুল হাসপাতালের প্রধান নিজামুদ্দিন জলিল জানিয়েছেন, পরিস্থিতি সামাল দিতে চিকিৎসক সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। বিভিন্ন জায়গা থেকে সন্দেহভাজন আক্রান্তদের নমুনা সংগ্রহ করে, পরীক্ষায় পাঠানো হয়েছে।

আফগানিস্তানের এই পরিস্থিতিতে তাদের পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস দিয়েছে বন্ধ দেশ ভারত। ওষুধ-সহ প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম পাঠানো হচ্ছে। আফগানিস্তানে এপিআই বা অ্যাকটিভ ফার্মাসিউটিক্যাল ইনগ্রেডিয়েন্ট পাঠাবে ভারত। তা ছাড়া, ৫ লক্ষ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন ট্যাবলেটও পাঠানো হচ্ছে।

সংবাদের ধরন : আন্তর্জাতিক নিউজ : নিউজ ডেস্ক