বিস্তারিত

আদম পাচার নিয়ে ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা বললেন ওমরসানী!

bdnews,bd news,bangla news,bangla newspaper ,bangla news paper,bangla news 24,banglanews,bd news 24,bd news paper,all bangla news paper,all bangla newspaper ছবি : সংগ্রহকৃত

bd news,bdnews,bdnews24,bdnews24 bangla,bd news 24,bangla news,bangla,bangla news paper,all bangla newspaper,bangladesh newspapers,all bangla newspaper,bangla news paper,bangladesh newspapers,all bangla newspapers,bd news 24,bangla news today,bd news paper,all bangla news paper,bangladeshi newspaper,all bangla newspaper,all bangla newspapers,bdnews,bangla news,bangla newspaper,bangla news paper,bangla news 24,banglanews,bd news 24,bangla news today,bd news paper,all bangla news paper,bangladeshi newspaper,all bangla newspaper,all bangla newspapers

গত ২৮ মার্চ ঢাকার এক শোবিজ সেলিব্রিটিদের নিয়ে এক গেট টুগেদারে নিজের তারকাজীবনের এক ভয়াবহ সংকটের কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে ভিসা সংক্রান্ত এক আলোচনায় চিত্রনায়ক ওমরসানী বলেন, ‘আমরা তো জানি না কোন আয়োজক আমাদের সাইনবোর্ড হিসেবে ব্যবহার করে আদম ব্যবসা করছে কি-না।
কারণ আমরা দেখি আমাদের সাথে আর কেউ পরিচিত যাচ্ছেন কি-না, তখন আমরা টাকা পয়সায় বনিবনা হলে, তখনই কেবল আমরা রাজী হই। এখন বাকি কারা কার গেলো, সেই দায়িত্ব তো আমরা নিতে পারি না। বা আমাদের পক্ষে তা সম্ভবও হয় না।

একই সাথে সুর মিলিয়ে অনুষ্ঠানে বলেন, ‘কণ্ঠশিল্পী হায়দার হোসেনও। হায়দার হোসেন বলেন, ‘আমার ক্ষেত্রে এরকম ভয়াবহতা থেকে একবার বেঁচে এসেছি।’
উল্লেখ্য, একাধিক চলচ্চিত্র নির্মাতা, প্রযোজক এমনকি অনুষ্ঠান আয়োজকের এই ধরণের বিভিন্ন কনসার্ট ও শুটিং এর নামে আদম পাচারের অভিযোগ রয়েছে।
গেল বছরে নির্মাতা মনতাজুর রহমান আকবরের টিমে মালয়শিয়ায় শুটিং ইউনিটের সাথে এরকম অপ্রীতিকর ঘটনার স্বীকার হন।

অন্যদিকে গেল বছর দক্ষিণ আফ্রিকার শুটিং ইউনিটের ভয়াবহ অভিজ্ঞতায় অল্পের জন্য বেঁচে গিয়েছিলেন চিত্রনায়ক রুবেল, নিরব ও অমৃতা।
সেই ছবির শুটিং ও রেকর্ডিং এর মাঝপথে গিয়েও আটকে যায়। দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফিরে নবাগতা অভিনেত্রী অমৃতা তার ভয়াবহ ঘটনার কথা বলেন। তবে সেই ইউনিটেও আরেক কমেডিয়ান এই অপকর্মের সাথে জড়িত ছিল বলে ভুক্তভোগীরা অনেকেই সেই সময় অভিযোগ করেছিলেন।’

এরকম একাধিক অভিযোগের প্রাসঙ্গিকতা নিয়েই ওমরসানী বলেন, ‘আসলে এ বিষয়ে কিছু অপকর্মকারীদের জন্য আমাদের ইমেজের ওপর বড় একটি আঘাত হানে। এদিকে বিভিন্ন অ্যাম্বাসী থেকে বলেন, ‘আমাদের এলার্ট হতে। আসরে এখানে আমাদের নিজেদের এলার্ট হবার কিছু নেই। কারণ সকলের ইনফোরমেশন থাকে ভিসা অফিসে, তাই আলাদাভাবে সবাইকে যাচাই করে অনুমোদন দিলেই তবে কেউ কারো জন্য আর ভোগান্তির স্বীকার হবে না।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : স্টাফ রিপোর্টার