বিস্তারিত

আত্মহত্যা করলেন এই টিভি অভিনেত্রী

ছবি : সংগ্রহকৃত

নিজের ঘরেই সিলিং থেকে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করলেন টেলিভিশন অভিনেত্রী প্রেক্ষা মেহতা। ইন্দোরের বাড়ি থেকেই অভিনেত্রীর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে খবর সোমবার রাতে আত্মহত্যা করেন প্রেক্ষা। মঙ্গলবার তাঁর দেহ উদ্ধার হয়। টেলিভিশনে ‘ক্রাইম পেট্রল’ ধারাবাহিকের একাধিক এপিসোডে অভিনয় করেন তিনি।

‘মেরি দুর্গা’, ‘লাল ইশক’ এবং আরও বেশ কিছু সিরিয়ালে অভিনয় করেছেন ২৫ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী।

মঙ্গলবার সকালেই অভিনেত্রীকে সিলিং ফ্যানে ঝুলতে দেখেন প্রেক্ষারই পরিবারের এক সদস্য। পরিবার সূত্রে জানানো হয়েছে, একটি সুইসাইড নোট লিখে গিয়েছেন তিনি। কিন্তু তাতে মৃত্যুর কোনও কারণ উল্লেখ করেননি অভিনেত্রী।

লকডাউনের কারণে কোনও কাজ না থাকার জন্য অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলেন প্রেক্ষা মেহতা। আর তারপরে মুম্বইতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বাড়ছে দেখে মধ্যপ্রদেশের ইনদোরে নিজের বাড়িতেই চলে গিয়েছিলেন তিনি। তবে তাঁর শেষ ইনস্টাগ্রাম পোস্টটি ছিল বেদনাদায়ক। সেখানে তিনি লিখেছিলেন, ‘স্বপ্নদের মৃত্যু সবথেকে খারাপ!’

প্রেক্ষার মৃত্যুর সংবাদটি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন আর এক জনপ্রিয় টেলিভিশন অভিনেত্রী রিচা তিওয়ারি। রিচা লিখছেন, ‘মুখের হাসির পিছনে এমন অনেক কিছু লুকিয়ে থাকে, যা আমরা সহজে বুঝতে পারি না। প্রেক্ষার সর্বশেষ স্টেটাসটি ছিল – স্বপ্নের মৃত্যু সবচেয়ে খারাপ! শারীরিক স্বাস্থ্যের পাশাপাশিই মানসিক স্বাস্থ্যেরও সচেতনতা তৈরি করা উচিত আমাদের।

কিছুদিন আগেই হতাশায় ভুগে আত্মহত্যা করলেন টেলিভিশন তারকা মনমীত গেরিওয়াল। সংসার চালানোর জন্য যৎসামান্য টাকাও তার কাছে ছিল না। এদিকে বাড়ি ভাড়া দিতে হত। খাবার জিনিসপত্র কিনতে হত, কিন্তু পকেটে টাকা কোথায়? হতাশা নিয়ে আর পেরে উঠছিলেন না। রাতে সদ্য বিবাহিতা স্ত্রীকে রেখে ফাঁসিতে ঝুলে পড়লেন ৩২ বছর বয়সের মনমীত।

‘আদত সে মজবুর’, ‘কুলদীপক’-এর মতো ধারাবাহিকগুলির সুবাদে মনমীত গেরিওয়ালকে অনেকেই চিনতেন। স্ত্রীর ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন অভিনেতা। মনমীতের নবি মুম্বইয়ের খারগর টাউনের ফ্ল্যাটেই এই ঘটনাটি ঘটে।

ক্যানসার যুদ্ধে হেরে গিয়ে গত ১০ মে প্রয়াত হয়েছিলেন ‘ক্রাইম পেট্রোল’-এর আর এক অভিনেতা শাকিফ আনসারি।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক